শনিবার ২৩শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ৭ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

সংবাদ শিরোনামঃ

স্বর্ণালঙ্কারের জন্য ছাত্রই খুন করে শিক্ষিকাকে

আপডেটঃ ১২:৪৮ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২১

নিউজ ডেস্কঃ

রাজশাহীতে নিজ বাড়িতে মন্নুজান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মায়া রাণী ঘোষকে (৭০) হত্যার ঘটনায় এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে নগরীর বোয়ালিয়া থানা পুলিশ।তার কাছ থেকে মায়া রাণীর শরীর থেকে খুলে নিয়ে যাওয়া স্বর্ণালঙ্কার ও মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়েছে।গ্রেপ্তার ব্যক্তির নাম মিলন শেখ (৪০)।নগরীর ফুদকিপাড়া এলাকায় তার বাড়ি।তার বাবার নাম কালু শেখ।মঙ্গলবার দিবাগত রাতে নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।মিলন শেখ মন্নুজান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র ছিল।সে সুবাদে আগে থেকে মায়া রাণীর সঙ্গে মিলনের পরিচয়ও ছিল বলে জানিয়েছেন বোয়ালিয়া থানার ওসি নিবারন চন্দ্র বর্মন।মঙ্গলবার নগরীর কুমারপাড়া ঘোষপাড়া মহল্লার নিজ বাড়িতে শ্বাসরোধ করে মায়া রাণী ঘোষকে হত্যা করা হয়।স্বামী-সন্তানহীন মায়া টিনশেডের নিজের বাড়িতে একাই থাকতেন।তিনি নগরীর মন্নুজান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ছিলেন।

২০১০ সালে তিনি চাকরি থেকে অবসর নেন।বোয়ালিয়া থানার ওসি নিবারন চন্দ্র বর্মন জানান, মায়া রাণীকে হত্যা করে তার গলার চেইন, হাতের বালা ও কানের দুল নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা করেছিলেন মিলন।এ জন্য কয়েকদিন থেকেই তিনি বাড়ি ভাড়া নেওয়ার নাম করে মায়ার বাড়ি যান।মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১০টা থেকে ১১টার মধ্যে তিনি মায়ার বাড়ি যান।

এ সময় বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে মিলন তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করে স্বর্ণালঙ্কার ও মোবাইল ফোন নিয়ে যান।ওসি জানান, ঘটনার পর থেকেই এর সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিকে খুঁজতে কাজ করছিল পুলিশ।মঙ্গলবার রাতেই তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।এ সময় তার বাড়ি থেকে সাড়ে তিন ভরি স্বর্ণালঙ্কার উদ্ধার করা হয়।

এ ছাড়া একটি মার্কেটের ছাদে তার দেখানো জায়গা থেকে মায়া রাণীর মোবাইল ফোন ও সীমকার্ড উদ্ধার করা হয়।মিলনকে মায়া রাণী হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।বুধবার বিকেলে মিলনকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয় বলেও জানান তিনি।

IPCS News Report : Dhaka : আবুল কালাম আজাদ : রাজশাহী।