নিউজিল্যান্ড ও বাংলাদেশর ১০ তারিখের প্রস্তুতি ম্যাচ খেলা শুধু কঠিনই না, অসম্ভবও।

আপডেটঃ 6:19 pm | February 07, 2019

১০ ফেব্রুয়ারি প্রস্তুতি ম্যাচে বাংলাদেশের একাদশ দাঁড়নোই কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে। মাত্রই ৮ ক্রিকেটার পৌঁছেছেন নিউজিল্যান্ডে। বাকিদের যাওয়ার কথা ৯ ফেব্রুয়ারি। কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার খুব একটা সুযোগ হবে না এই খেলোয়াড়দের। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষ লড়াইয়ে নামতে এক প্রকার প্রস্তুতি ছাড়াই।


২০১৬ সালে বাংলাদেশ ভালো প্রস্তুতি নিয়ে খেলতে গিয়েছিল নিউজিল্যান্ডে। চন্ডিকা হাথুরুসিংহের চাহিদা মতো সিডনিতে দুই সপ্তাহের কন্ডিশনিং ক্যাম্প, ৮-১০ দিন আগে নিউজিল্যান্ডে পৌঁছে যাওয়া—প্রস্তুতির কোনো ঘাটতি না থাকার পরও কিউইদের বিপক্ষে বাংলাদেশ এক প্রকার বিধ্বস্ত হয়েছিল প্রতিটি সংস্করণেই। এবার প্রস্তুতি ছাড়া যাওয়া হচ্ছে, কী হবে, সেই শঙ্কা থাকছেই।

প্রস্তুতি ছাড়া নিউজিল্যান্ড সফরে যাওয়া বাংলাদেশের কোনো আশা আছে?
বিপিএল চলছিল, কিছু করার নেই। আমাদের মানিয়ে নিতে হবে। খারাপ হলে মানুষ খারাপ বলবে। ভালো হলে ভালো বলবে। মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করব আমরা। অবশ্যই জেতার চেষ্টা করব। সেরা ক্রিকেট খেলার চেষ্টা করব।’
তবে তিনি, ‘বেশি আশা দেব না।পূর্ণ আত্মবিশ্বাস নিয়ে খেলব আশা করি। সম্ভাবনা তো অবশ্যই আছে। শেষ সফরে কিন্তু আমরা একটা ম্যাচে জয়ের কাছাকাছি ছিলাম। ২৫১ রানে ওদের অলআউট করেছিলাম। এক শ রানের মতো জুটি হয়েছিল ইমরুল ও সাব্বিরের। তারপর ব্যাটিং বিপর্যয় হয়। ভালো একটা সুযোগ আমরা পেয়েছিলাম। হাতছাড়া করেছি। এবার যদি ওরকম সুযোগ পাই আমরা যেন হাতছাড়া না করি। প্রত্যাশা করছি। তবে কিছু কঠিন তো হবেই ।’