বুধবার ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ৭ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

সংবাদ শিরোনামঃ

‘বঙ্গবন্ধু‘ ছিলেন বাঙালি জাতির মুক্তির দিশারি: ‘উপাচার্য‘ রামেবিঃ

আপডেটঃ ৩:৫৭ অপরাহ্ণ | আগস্ট ১৬, ২০২১

নিউজ ডেস্কঃ

রাজশাহী মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (রামেবি) উপাচার্য অধ্যাপক ডা. এ.জেড.এম মোস্তাক হোসেন বলেছেন,জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছিলেন বাঙালি জাতির মুক্তির দিশারি।তিনি ছিলেন গণ-মানুষের নেতা।তার ডাকে পাকিস্তানী শোষক গোষ্ঠীর হাত থেকে মুক্তি পেতে ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে এ দেশের সকল শ্রেণি ও পেশার-মানুষ মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ে দেশকে স্বাধীন করেছিল।বঙ্গবন্ধুকে দৈহিকভাবে হত্যা করা হলেও তার মৃত্যু নেই,তিনি চিরঞ্জীব।কেননা,তিনি বাঙালি জাতি ও বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টা।যত দিন বাংলাদেশ থাকবে,বাঙালি জাতি থাকবে ততদিন তিনি অমর হয়ে থাকবেন।‘বঙ্গবন্ধু‘ শুধু একজন ব্যক্তিই নন,এক মহান আদর্শের নাম।যে আদর্শের কোনো মৃত্যু নেই।রবিবার (১৫আগষ্ট) সকালে রামেবির কনফারেন্স রুমে জাতীয় শোকদিবস ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬তম শাহাদত বার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

উপাচার্য অধ্যাপক ডা. এ.জেড.এম মোস্তাক হোসেন আরও বলেন,১৯৭৫ সালের এদিনে বাংলাদেশের স্থপতি,হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবারের সদস্যদের নির্মমভাবে হত্যা করা হয়।এ হত্যাকান্ড শুধু ব্যক্তি শেখ মুজিব কে হত্যা নয়,হত্যা করা হয়েছিল স্বাধীনতার মূল চেতনাকে,পবিত্র সংবিধানকে।চেষ্টা করা হয়েছিল বঙ্গবন্ধুর নাম ইতিহাস থেকে মুছে ফেলার।আমরা এই শোকাবহ দিনে জাতির জনকের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানাচ্ছি।

একই সঙ্গে সেদিন কালরাতে শহীদ সকলের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করছি।জাতীয় শোক দিবস পালন উপলক্ষে রামেবির কর্ম-সূচিতে ছিল সকাল ৮টায় জাতীয় পতাকা অর্ধ নমিত ও কালো পতাকা উত্তোলন,সকাল সাড়ে ৮টায় জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে সামাজিক দুরত্ব ও স্বাস্থবিধি মেনে পুষ্প-স্তবক অর্পণ এবং মোনাজাত।এরপর সকাল ১১টায় জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা-সভা অনুষ্ঠিতহয়।

আলোচনা-সভায় আরো বক্তব্য দেন রামেবির কোষাধ্যক্ষ প্রফেসর ড. রুস্তম আলী আহমেদ, রামেকের অধ্যক্ষ ও রামেবির ডিন অধ্যাপক ডা.মো: নওশাদ আলী,রামেবির কলেজ পরিদর্শক ও ডিন অধ্যাপক ডা. জাওয়াদুল হক,রামেবির ডিন ও রামেক উপাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা.মুহা.হাবিবুল্লাহ সরকার,রামেবির ডিন অধ্যাপক ডা. মো: মাহবুবুর রহমান খান প্রমুখ।

এ সময় রামেবির সহকারী কলেজ পরিদর্শক ডা. এবিএম সেলিমুজ্জামান,সেকশন অফিসার রাসেদুল ইসলাম,লিয়াজোঁ ও প্রটোকল অফিসার ইসমাঈল হোসেন,কবির আহমেদ,মেহেদী মাসুদ সানি,গোলাম রহমান সহ রামেবির সকল কর্মকর্তা-কর্মচারী উপস্থিত ছিলেন।

IPCS News Report : Dhaka: কবরি আহমেদ,
জনসংযোগ দপ্তর, রাজশাহী মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়।