শনিবার ৩রা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সংবাদ শিরোনামঃ

রাজশাহীতে করোনায় আরও ১২ জনের মৃত্য, স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ৪১জনের বিরুদ্ধে মামলা

আপডেটঃ ৬:০১ অপরাহ্ণ | আগস্ট ০৭, ২০২১

নিউজ ডেস্কঃ

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের করোনা ইউনিটে একদিনে ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে।শুক্রবার সকাল ৮টা থেকে শনিবার সকাল ৮টার মধ্যে তাদের মৃত্যু হয়েছে।অন্যদিকে করণা সংক্রমণ রোধে ভ্রাম্যমাণ আদালত স্বাস্থ্যবিধি না মানায় রাজশাহীতে ৪১জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী মেয়েদের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মৃতদের মধ্যে করোনা আক্রান্ত হয়ে ৪ জন ও উপসর্গে ৫ জন এবং নেগেটিভ হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন আরও ৩জন।গত ২৪ ঘণ্টায় রামেক হাসপাতালে মারা যাওয়া ১২জনের মধ্যে রাজশাহীর ৩,নাটোর ১,পাবনার ২,চাঁপাইনবাবগঞ্জে ২ এবং নওগাঁর ২,কুষ্টিয়ার ২ এবং সিরাজগঞ্জের ১ জন আছেন।এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় রামেক হাসপাতালে নতুন ভর্তি হয়েছেন ৪৩জন।

বর্তমানে হাসপাতালটিতে ৫১৩টি করোনা ডেডিকেটেড শয্যার বিপরীতে রোগী ভর্তি আছেন ৪০৭ জন।গত ২৪ ঘণ্টায় রামেক হাসপাতাল থেকে কোরনা ও উপসর্গ নিয়ে ছুটি হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২৯ জন।* ৪১ জনের বিরুদ্ধে মামলা ও জরিমানা রাজশাহীতে লকডাউনে শুক্রবার (৬ আগস্ট) স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ৪১ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

এ সময়ে জরিমানা করা হয়েছে ২৪ হাজার ৩৫০ টাকা।রাজশাহী জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ কাউছার হামিদ শুক্রবার দিবাগত রাত ৯ টায় এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে শুক্রবার সকাল থেকে রাজশাহী নগরী ও উপজেলা গুলোতে এই জরিমানা করা হয়।

মোহাম্মদ কাউছার হামিদ আরও বলেন,লকডাউন চলাকালে সরকারের ঘোষিত স্বাস্থ্যবিধি অমান্য করার অভিযোগে দন্ডবিধি-১৮৬০ এবং সংক্রামক রোগপ্রতিরোধ,নিয়ন্ত্রণ, নির্মূল আইন-২০১৮ সালের আইনে ৪১ জনকে মামলা দেয়া হয়েছে।জরিমানা করা হয়েছে ২৪ হাজার ৩৫০ টাকা।

একই সময়ে অসচ্ছল এক হাজার মানুষকে ১ হাজার ২৫০টি মাস্ক বিতরণ করা হয়েছে।সর্বাত্মক লকডাউন চলাকালে বিধিনিষেধ অনুযায়ী জরুরি ওষুধ ও নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দোকানের বাইরে কেউ দোকানপাট খুলতে পারবে না।এ সময়ে অপ্রয়োজনে কেউ বাইরেও বের হতে পারবে না।

জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হলেও মাস্ক পরতে হবে, স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে।কিন্তু লক্ষ করা গেছে,এই সময়েও কেউ কেউ দোকান খুলেছে।তাদের জরিমানা করা হয়েছে।এ ছাড়া যারা মাস্ক পরেননি কিংবা স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘন করেছেন,তাঁদেরও মামলা দেয়া হয়েছে।

IPCS News/রির্পোট।আবুল কালাম আজাদ,রাজশাহী।