বুধবার ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ৭ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

সংবাদ শিরোনামঃ

সরকার আরও কঠোর হচ্ছে , মাস্ক না পরলে জরিমানা করতে পারবে পুলিশ

আপডেটঃ ৪:৫১ অপরাহ্ণ | আগস্ট ০৩, ২০২১

নিউজ ডেস্কঃ

সরকার করোনার সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আরও কঠোর অবস্থানে যাচ্ছেন।স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক জানিয়েছেন, বাসার বাইরে কেউ মাস্ক না পরলে পুলিশ জরিমানা করতে পারবে।কোনো ব্যক্তি এই আইন অমান্য করলে তার বিরুদ্ধে সংক্রমণ আইন–২০১৮ অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।মঙ্গলবার সচিবালয়ে করোনা পরিস্থিতিতে আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ তথ্য জানান।স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন,সবাইকে মাস্ক পরতে হবে, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখাটা খুব গুরুত্বপূর্ণ।এটাকে সঠিকভাবে এনফোর্স করতে পুলিশকে ক্ষমতা দেওয়ার প্রয়োজন রয়েছে,যাতে করে যারা মাস্ক পরবে না তাদের জরিমানা করতে পারে।এজন্য অধ্যাদেশ লাগবে।এই আইন সংশোধন হলে কেউ লকডাউনের বিধিনিষেধ না মানলে পুলিশ তাকে শাস্তি দিতে বা জরিমানা করতে পারবে।

ইতিমধ্যে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কাছে সংশোধনীর প্রস্তাবনা চাওয়া হয়েছে।জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেন, এখনই পুলিশকে সেই ক্ষমতা দেওয়া হচ্ছে না।কত দিন থাকবে এই মহামারি সেটাতো আমরা জানি না।এ কারণে পুলিশকে কিছু ক্ষমতা দেওয়ার উদ্যোগ আমরা নিয়েছি।লকডাউন বাস্তবায়নে পুলিশের হাতে তো আসলে কোনো ক্ষমতা নেই।কাউকে তো তারা মাস্ক পরতে বাধ্য করতে পারছে না।তাই এই আইন সংশোধন হলে কেউ লকডাউনের বিধিনিষেধ না মানলে পুলিশ তাকে শাস্তি দিতে বা জরিমানা করতে পারবে।তবে কী ধরনের শাস্তি পুলিশ দিতে পারবে, সেটা এখনো নিশ্চিত নয়।

এর মধ্যে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের কাছে আইনটির কী সংশোধন করে পুলিশকে বিচারিক ক্ষমতা দেওয়া যায়, সেটা জানিয়ে প্রস্তাব দিতে বলা হয়েছে।তাদের কাছ থেকে প্রস্তাব পেলে সেটা মন্ত্রিসভার বৈঠকে উঠবে।এরপর আইন মন্ত্রণালয়ের মতামত লাগবে।সর্বশেষ রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে অধ্যাদেশ জারি হবে।তবে কাজটা এই মুহূর্তেই হচ্ছে না।আমরা উদ্যোগ নিয়েছি,বাস্তবায়ন করতে একটু সময় লাগবে।করোনা ভাইরাস সংক্রমণের মধ্যে সারা দেশে গণটিকাদান কর্মসূচি চালু হয়েছে।দেশের আশি ভাগ মানুষকে টিকার আওতায় আনার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।তবে টিকা দেওয়ার পরও সংক্রমণ থেকে বাঁচতে মাস্ক পরার অনুরোধ জানিয়েছে অধিদপ্তর।

IPCS News/রির্পোট।dhaka