শুক্রবার ২১শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৭ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার মালেকের প্রতি নানান অভিযোগ

আপডেটঃ ৫:১৬ অপরাহ্ণ | জুলাই ২৭, ২০২১

নিউজ ডেস্কঃ

রাজশাহী প্রতিনিধি:-বাংলাদেশ রেলওয়ে ২০২০ -২১ অর্থবছরে মালবাহী ট্রেনে মালামাল বহন করে আয় করেছেন ১১৭ কোটি টাকা।এ ছাড়া ঈদের আগে পশুবাহী ক্যাটেল ট্রেন ঈদ উল আযহার পূর্বে মাত্র দুইদিন চলাচল করে আয় করেছেন এক লক্ষ টাকা।এই সংবাদটি প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় প্রচারের জন্য মালবাহী চলন্ত ট্রেনের ভিডিও ফুটেজ এর প্রয়োজন অনুভব করে সাংবাদিকেরা।চলন্ত মালবাহী ট্রেনের ছবি নেওয়ার জন্য রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশন কর্তব্যরত স্টেশন  মাস্টার আব্দুল মালেক কে ২৭ জুলাই সকাল ৬টা ২৭ মিনিটে ০১৭১৭৩৩৩৮৮৮ নং তার ব্যবহৃত মোবাইলে জানতে চাওয়া হয় যে, মালবাহী ট্রেন চাঁপায়-রাজশাহীতে-সারদা রূটে চলাচলের সময় জানতে চাওয়া হয়।জবাবে তিনি বলেন, মালবাহী ট্রেন কখন চলাচল করবে সেটা কন্ট্রোল জানে বলে মোবাইল কেটে দেন।পুনরায় ৬টা ২৮মিনিটে তাকে অনুরোধ করা হয় কন্ট্রোল থেকে জেনে আমাদেরকে একটু মিসকল দেন।বিষয়টি তিনি দেখছেন বলে পুনরায় মোবাইল কেটে দেন।এরপর সকাল ৭ ,৪৪মিনিটে পুনরায় মোবাইল করা হলে তিনি বলেন আমি গাড়ি শান্টিং নিয়ে ব্যস্ত,এখন কথা বলার সময় নেই।রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশন একটি বিভাগীয় স্টেশন এবং খুব গুরুত্বপূর্ণ স্টেশন।

এমন একটি গুরুত্বপূর্ণ স্টেশনে একটি গুরুত্বপূর্ণ পদে ,কর্তব্য হীন, অসামাজিক ও‌ অসৌজন্যমূলক আচরণের ব্যাক্তি কিভাবে চাকরি করে এটা বোধগম্য নয়।একাধিক তথ্য জানা গেছে  স্টেশন মাস্টার আব্দুল মালেক শুধু সাংবাদিকদের সাথে নয়,  ট্রেনের যাত্রী, তার সহকর্মী এমনকি রেলওয়ে কর্মচারীদের সাথে অসৌজন্যমূলক আচরণ করে থাকেন।ট্রেন চলাচলের সময় রেলগেট গুলিতে গেটকিপার দিয়ে সবসময় সতর্ক অবস্থানে থাকতে হয় তাদের একটু অন্যমনস্ক পাওয়ার কারণে বিএড গুলিতে ঘটতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা।অনেক সময় যান্ত্রিক ত্রুটির জন্য রেলগেটে রক্ষিত টেলিফোন গুলি নাও বাঁজতে পারে।

তাই রেড গুলি থেকে মোবাইলে স্টেশন মাস্টারকে ট্রেনের সময় জানতে চাইলে তিনি গেটকিপারের কোনো তথ্য না দিয়ে তাদের সাথে অসদাচরণ,না হয় মোবাইল কেটে দেন।এই অভিযোগ রাজশাহী শহরের রেলগেটের গেট ম্যানদদের।নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন গেটম্যান জানান, রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশনে তিনজন  মাস্টার কাজ করেন।দুজন স্টেশন মাস্টার তাদের সাথে ভাল আচরণ এমনকি তারায় তাদের টেলিফোন এমনকি মোবাইল করে ট্রেনের খবর জানান।একমাত্র আব্দুল মালিক এর ব্যতিক্রম।তারা স্টেশন মাস্টার আব্দুল মালেকের কার্যকলাপের প্রতি উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের দৃষ্টি দেওয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন।

IPCS News/রির্পোট।আবুল কালাম আজাদ:-রাজশাহী।