রবিবার ১৭ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১লা কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

সংবাদ শিরোনামঃ

৫ দিনে রামেক হাসপাতালে ৯৩ জনের মৃত্যু

আপডেটঃ ৬:০৪ অপরাহ্ণ | জুলাই ২৪, ২০২১

নিউজ ডেস্কঃ

রাজশাহী প্রতিনিধি:-২৪জুলাই সকাল ৮টা পর্যন্ত গত ২৪ঘন্টায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে।এনিয়ে গত ৫দিনে ৯৩জনের মৃত্যু হয়েছে।আর ঈদের চারদিনে মৃত্যু হয়েছে ৮২জনের।তবে গত চারদিনের তুলনায় কমেছে মৃত্যুর হার।এমন চিত্র উঠে এসেছে গত ৪দিনে রামেক হাসপাতালে মৃত্যু সংখ্যার বিশ্লেষণে এই তথ্য উঠে এসেছে।রামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী জানান, মৃতদের মধ্যে করোনা আক্রান্ত হয়ে ৭জন ও উপসর্গে ৫জন মারা গেছেন।এদের মধ্যে মধ্যে রাজশাহীর ৬,পাবনা ২এবং নাটোর,কুষ্টিয়া ও নওগাঁর একজন করে আছেন।করোনা আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে রোগীদের ভর্তি ও সংক্রমণের বিষয়ে রামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী জানান,গত ২৪ঘণ্টায় রামেকে নতুন ভর্তি হয়েছেন ৫৭জন।

বর্তমানে রামেক হাসপাতালে ৫১৩টি করোনা ডেডিকেটেড শয্যার বিপরীতে রোগী ভর্তি আছেন ৪১৯জন।অন্যদিকে,ঈদের আগের দিন (২০জুলাই মঙ্গলবার) ২০জনের মৃত্যু হয়।এর মধ্যে করোনা আক্রান্ত হয়ে চারজন ও উপসর্গে ১৬ জন মারা গেছেন।মারা যাওয়া ২০জনের মধ্যে রাজশাহীর আটজন,চাঁপাইনবাবগঞ্জের দুইজন,নাটোরের পাঁচজন,নওগাঁ দুইজন ও কুষ্টিয়ার তিনজন।তবে ঈদের দিন গত বুধবার (২১ জুলাই) দুজন কমে ২৪ ঘন্টায় ১৮ জনের মৃত্যু হয়।১৮জনের মধ্যে করোনায় চারজন ও উপসর্গে ১৪জন মারা গেছেন।মৃত ১৮জনের মধ্যে রাজশাহীর আটজন,নাটোরের চারজন,পাবনা ও চাঁপাইনবাবগঞ্জে দুজন করে, নওগাঁ ও কুষ্টিয়ার একজন।ঈদের দ্বিতীয় দিন গত (বৃহস্পতিবার ২২জুলাই) হাসপাতালের করোনা ইউনিটে মারা যায় ২২জন।

ঐদিন করোনা আক্রান্ত সাতজন ও উপসর্গ নিয়ে আরও ১৫জন মারা গেছেন।মৃতদের মধ্যে রাজশাহীর ১০জন,নাটোরের ছয়জন,নওগাঁ দুইজন ও পাবনার চারজন।মারা যাওয়া ২২জনের মধ্যে ১৩জন পুরুষ এবং ৯জন নারী।গতকাল শুক্রবার (২৩জুলাই) করোনা ইউনিটে আরও ২২জনের মৃত্যু হয়।চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরও ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে।একই সময় করোনা উপসর্গ নিয়ে আরও ১৫জন মারা গেছেন।এছাড়াও করোনামুক্ত হওয়ার পর স্বাস্থ্য জটিলতায় মারা যান একজন।মৃতদের মধ্যে রাজশাহীর ১১জন,চাঁপাইনবাবগঞ্জের চারজন, নাটোরের দুইজন, নওগাঁ একজন ও পাবনার চারজন।মারা যাওয়া ২২জনের মধ্যে ১৪জন পুরুষ এবং আটজন নারী।