বৃহস্পতিবার ৭ই জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ২৩শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সংবাদ শিরোনামঃ

গাজীপুরে দুই মহাসড়কে যানজট

আপডেটঃ ১:০৬ অপরাহ্ণ | জুলাই ১৭, ২০২১

নিউজ ডেস্কঃ

গত বৃহস্পতিবার থেকে সড়ক ও মহাসড়কে যানবাহন চলাচল শুরু করেছে ১৪দিনের লকডাউন শেষে।ঈদ উপলক্ষে বাড়ি ফিরতে শুরু করেছে মানুষ।গাজীপুরে ঢাকা-ময়মনসিংহ ও ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে সকাল থেকে বাড়ছে যানবাহনের চাপ।এ কারণে আজ শনিবার সকাল থেকেই টঙ্গী থেকে চান্দনা চৌরাস্তা পর্যন্ত থেমে থেমে চলছে গাড়ি।একই অবস্থা ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে চন্দ্রা ত্রিমোড় এলাকায়। দুর্ভোগে পড়েছে যাত্রীরা।সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, সকালে নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়কের গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার চন্দ্রা থেকে নবীনগর পর্যন্ত ১৬কিলোমিটার যানজট,ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের নবীনগর থেকে হেমায়েতপুর পর্যন্ত ১৭ কিলোমিটার যানজট ছিল।এ ছাড়া ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের চন্দ্রা থেকে মৌচাক পর্যন্ত সড়কের বিভিন্ন স্থানে যানবাহনের জটলা লেগে ছিল।থেমে থেমে চলছিল সব ধরনের যানবাহন।একদিকে যানজটে ঘণ্টার পর ঘণ্টা আটকা, তার ওপর রোদের ভেতরে প্রচণ্ড গরমে নাভিশ্বাস ওঠে যাত্রী ও পরিবহনকর্মীদের।সেই সঙ্গে বিক্রি করতে আনা কোরবানির পশু নিয়ে সড়কে আটকা পড়ে বিপাকে পড়েন মানুষজন।

দীর্ঘ লকডাউনের পর ছুটি হওয়ায় এবার রাস্তায় মানুষ বেশি থাকবে, তাই তাদের নিরাপত্তাসহ স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিতে মাঠে কাজ করছে বলে জানিয়েছে গাজীপুর ট্রাফিক বিভাগ।হাইওয়ে পুলিশ বলছে, ঈদ সামনে রেখে বিধিনিষেধ শিথিল করায় গাজীপুরের ঢাকা-ময়মনসিংহ এবং ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে যানবাহনের চাপ বেড়েছে।লোকজনের চলাচলও অনেক বেড়ে গেছে।সকাল থেকেই পণ্যবাহী বিভিন্ন ধরনের যানবাহনের সঙ্গে ব্যক্তিগত গাড়ি,দূরপাল্লার বাস কোরবানির পশুবাহী ট্রাকের সংখ্যা বেড়ে যায়।তা ছাড়া বিআরটি (বাস র‌্যাপিড ট্রানজিট) প্রকল্পের কাজ চলমান থাকায় ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের গাজীপুরের চান্দনা চৌরাস্তা থেকে টঙ্গী পর্যন্ত বিভিন্ন স্থানে যানবাহন চলাচল করছে থেমে থেমে।সড়কের পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা কাজ করে যাচ্ছেন।

 IPCS News/রির্পোট।