শুক্রবার ২২শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ৬ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

সংবাদ শিরোনামঃ

তিনগুণ দামে বিক্রি হচ্ছে অক্সিজেন সিলিন্ডার রাজশাহীতে করোনা রোগীরা অক্সিজেন ব্যবসায়ীদের কাছে জিম্মি

আপডেটঃ ৬:১৫ অপরাহ্ণ | জুন ১৫, ২০২১

নিউজ ডেস্কঃ রাজশাহীতে করণা আক্রান্ত রা অক্সিজেন সিলিন্ডার ব্যবসায়ীদের নিকট জিম্মি হয়ে পড়েছে।তারা ইচ্ছামত বাজারদরের দ্বিগুণ তিনগুণ দাম নিয়ে বিক্রি করছে অক্সিজেন সিলিন্ডার।জীবন বাঁচাতে তারা বাধ্য হয়ে বেশি দামে  কিনছেন রোগীর অভিভাবকেরা।ঢাকায় যে অক্সিজেন সিলিন্ডিার বিক্রি হচ্ছে ১০ হাজার টাকায়, সেটি রাজশাহীতে ১৯, ৫০০ থেকে ২০ হাজার টাকায় বিক্রি হচ্ছে।আবার ১৫ হাজার টাকার সিলিন্ডার বিক্রি হচ্ছে ৩২ হাজার টাকায়।এছাড়া তাদের কাছে কেন ছাড়া বাইরে কেনা সিলিন্ডার রিফিল করে দিচ্ছে না তারা।কেবল রাজশাহীর ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে অক্সিজেন সিল্ডিার কেনার পরেই সেগুলো রিফিল করে দেওয়া হচ্ছে।

এতে করে রাজশাহীর তিন ব্যবসায়ীর কাছে জিম্মি হয়ে পড়েছেন শত শত করোনা আক্রান্ত ও শ্বাসকষ্টজনিত  আক্রান্ত রোগীরা।ফলে অতিরিক্ত দামের কারণে অনেক রোগী বাইরে থেকে সিলিন্ডার কিনে নিয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে চাইলেই সেটি পারছেন না টাকার অভাবে।অপরদিকে হাসপাতালেও পর্যাপ্ত  অক্সিজেন সরবরাহ নি থাকায় শ্বাসকষ্টজনিত আক্রান্ত রোগীরা ব্যাপক ভোগান্তির মধ্যে পড়েছেন।এমনকি অক্সিজের অভাবে মৃত্যুর ঘটনাও ঘটছে রোগীর।রাজশাহীর শ্বাসকষ্টের এক রোগীর অভিভাবক  সাহিনুর  জানান, তাঁর মামার জন্য ঢাকা থেকে একটি অক্সিজেন সিলিন্ডার নিয়ে এসেছিলেন ১০ হাজার টাকা দিয়ে।ওই রোগী হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে এখন বাড়িতেই চিকিৎসা নিচ্ছেন।কিন্তু বাড়িতেও প্রতিদিনই তাকে অক্সিজেন দিতে হচ্ছে। ঢাকা থেকে কিনে  আনা অক্সিজেন সিলিন্ডারের অক্সিজেন শেষ হয়ে গেছে গত ১২ জুন।

এরপর তিনি নগরীর ঘোষপাড়া ‘স্পেক্ট্রা অক্সিজেন’ দোকানে যান সিলিন্ডারের সিলিন্ডার রিফিল করতে।কিন্তু ওই দোকানের ম্যানেজার সোহেল রানা বলেন, যেখান থেকে সিলিন্ডার কিনেছেন সেখান থেকে রিফিল করে নিতে হবে।আমাদের এখান থেকে কিনলে সেটি রিফিল করে দিব।’তিনি সেখান থেকে নগরীর লক্ষীপুরের অক্সিজেন সিলিন্ডারের দোকানে যান।কিন্তু তারাও একই কথা বলে ফিরিয়ে দেন তাকে।এদিকে অক্সিজেনের ওভাবে তখন তার মামা মৃত্যু শয্যায় পাঞ্জা লড়ছেন।বাধ্য হয়ে ঋণ করে তিনি ১০ লিটারের অক্সিজেন সিলিন্ডার ১৯ হাজার ৫০০ টাকায় কিনেন ।অথচ ঢাকায় সেটি বিক্রি হচ্ছে সর্বোচ্চ ১০ হাজার ৫০০ টাকায়।১৫ জুন  দুপুরে শাজাহান নামের এক যুবক বলেন, ‘ঢাকায় যে সিলিন্ডার বিক্রি হচ্ছে সর্বোচ্চ ১৫ হাজার টাকায় ,সেটি রাজশাহীতে বিক্রি হচ্ছে ৩২  হাজার টাকায়।

শেষ পর্যন্ত ধার-দেনা করে তিনি তাঁর মায়ের জন্য একটি সিলিন্ডার কিনেছেন ১৯ হাজার ৫০০ টাকা দিয়ে।অথচ ঢাকায় এটির দাম সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা।মজিবুল নামের এক ব্যক্তি বলেন, রাজশাহীর তিন অক্সিজেন ব্যবসায়ীর নিকট জিম্মি শ্বাসকষ্ট জনিত ও করণা আক্রান্ত রোগীর আত্মীয় স্বজনরা।উপায় বা বিকল্প কোন সমাধান না থাকায় রোগীদের  তাদের নিকট থেকেই অতিরিক্ত দামে অক্সিজেন সিলিন্ডার কিনতে হচ্ছে।রাজশাহীর “স্প্যাক্ট্রা” অক্সিজেনের ম্যানেজার সোহেল রানা বলেন, অক্সিজেন সঙ্কটের কারণে যারা আমাদের নিকট থেকে অক্সিজেন সহ আগে সিলিন্ডার কিনেছেন, তাদেরকেই আমরা রিফিল করে দিচ্ছি।তবে ঢাকার চেয়ে রাজশাহীতে আনতে গাড়ি ভাড়া বেশি পড়ছে, তাই দামও বেশি এখানে। ফলে রোগীদের জিম্মি করার সুযোগ নাই।

IPCS News/News Desk