মঙ্গলবার ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ৬ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

সংবাদ শিরোনামঃ

দিনাজপুরে কাহারোলে সার পাচ্ছেন না কৃষকেরা: ক্ষোভ প্রকাশ

আপডেটঃ ১২:২১ অপরাহ্ণ | মার্চ ২৫, ২০২১

নিউজ ডেস্কঃ

দিনাজপুর কাহারোল উপজেলার কৃষি অফিসে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে।দিনাজপুরের কাহারোল উপজেলার কৃষকদের সুবিধার্থে সব ধরনের সার পাওয়ার জন্য কৃষি বিভাগ কাহারোল উপজেলার ৬টি ইউনিয়নে ১০জন বিসিআইসি সার ডিলার রয়েছে, বলে কাহারোল কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে।কৃষকদের সার কৃষকেরা পান না।কাহারোল কৃষি অফিসের যোগসূত্রে বিসিআইসি সার ডিলাররা আমদানিকৃত অস্ট্রোলিয়ান ডিএপি সার ও বিসিআইসির টিএসপি ও ডিএপি সার বরাদ্দ পাওয়ার পরেও উপজেলার কোন এলাকায় কোন কৃষক এই সকল সার ডিলারদের কাছ থেকে ক্রয় করতে পারেনি বলে একাধিক কৃষক এ প্রতিনিধিকে জানিয়েছে।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালকের কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে ২০২০-২০২১ইং অর্থ বছরের বিসিআইসি ও আমদানিকৃত জুলাই মাস হতে ফেব্রæয়ারি’২০২১ পর্যন্ত নন ইউরিয়া সারের ডিলার ওয়ারী উপ-বরাদ্দ পত্রের হিসাব অনুযায়ী বিসিআইসির বরাদ্দকৃত টিএসপি ৩৮.২ মেট্রিক টন আমদানিকৃত ডিএপি অস্টোলিয়া ৪৬.৪ মেট্রিক টন ও ১৯.৯ মেঃটন সার বরাদ্দ পেলেও কৃষি অফিসের মনিটরিং না থাকায় ডিলাররা সার কাহারোল উপজেলায় আনেননি।

কাহারোলের কৃষকেরা জানান, ২বছর যাবত কাহারোল উপজেলায় আমদানীকৃত ডিএপি ও টিএসপি এবং বিসিআইসির (দেশী) টিএসপি ও ডিএপি সার কাহারোল উপজেলায় তারা কোনদিন ক্রয় করতে পারেননি।নাম প্রকাশ না করার শর্তে ডিলার জানান, কাহারোল উপজেলা কৃষি কর্মকর্তাকে বিসিআইসির টিএসপি ও আমদানিকৃত ডিএপি সারের প্রতি টন বাবদ ১ হাজার করে উৎকোচ দিতে হয়েছে।সার আনলেও টাকা দিতে হবে, না আনলেও টাকা দিতে হবে।

কৃষকদের অভিযোগ কাহারোল কৃষি কর্মকর্তা যোগদানের পর থেকেই নাকি অনিয়মগুলো বেড়েই চলেছে।কৃষি উপ-সহকারী কর্মকর্তা মোঃ জুলফিকার আলী ২ যুগের অধিক একই স্থানে চাকুরির সুবাধে ডিলারদের জিম্মি করে অতিরিক্ত টাকা কৃষি অফিসারদের নাম ভাঙ্গিয়ে সার ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে হাতিয়ে নিচ্ছে বলে ডিলাররা অভিযোগ করেছেন।

ডিলারেরা আরও জানিয়েছেন ফার্নিচার বাবদ প্রতি ডিলার ২০ হাজার টাকা করে উৎকোচ দিয়েছেন কৃষি অফিসে! গত মার্চ ২০২১ ইউরিয়া সারের বরাদ্দে ব্যাপক অনিয়ম করেছেন তিনি।রামচন্দ্রপুর ইউনিয়নের মেসার্স এমএস ট্রেডার্সকে ৭০ মেঃ টন ইউরিয়া সার বরাদ দেন ইউনিয়ন ওয়ারী।কিন্তুু ডাবোর ইউনিয়নের ভাই ভাই ট্রেডার্সকে বরাদ্দ দেন ১শত ১৬ মেঃ টন ইউরিয়া সার।

ভাই ভাই ট্রেডার্স মোট অংকের উৎকোচ দেওয়ার ফলে মেসার্স এমএস ট্রেডার্সের চেয়ে ৪৬ মেঃ টন ইউরিয়া সার বরাদ্দ দেন ১লা মার্চ ২১ তারিখে।এ ব্যাপারে গতকাল কৃষি কর্মকর্তা আবু জাফর মোঃ সাদেক এর সঙ্গে কথা হলে কথা হলে এ সকল বিষয়ে তিনি এড়িয়ে যান, বলেন আপনাদেরকে কে কি বলল তাতে আমার কিছু বলার নেই।

IPCS News/রির্পোট, আব্দুস সালাম, দিনাজপুর।