শুক্রবার ২২শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ৬ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

সংবাদ শিরোনামঃ

রাজশাহী শাহ মখদুম মেডিকেলে কলেজের এমডি ও অধ্যক্ষ লাপাত্তা,বিপাকে শিক্ষার্থীরা

আপডেটঃ ১:১৯ অপরাহ্ণ | জানুয়ারি ১২, ২০২১

নিউজ ডেস্কঃ

শিক্ষার্থীদের শিক্ষাগত যোগ্যতার সব কাগজপত্র ফেরত দেওয়ার নামে কালক্ষেপন করছে শাহ মখদুম মেডিকেল কলেজ কর্তৃপক্ষ।সেই সুযোগে গাঁ-ঢাকা দিয়েছেন এমডি ও অধ্যক্ষ।মেডিকেল কলেজের ওই দুই ব্যক্তি মুঠোফোন বন্ধ রখায় দুর্ভোগে পড়েছে ২০৭ শিক্ষার্থী।যদিও সোমবার (১১ জানুয়ারি) সকাল থেকেই মেডিকেল কলেজটিতে তালা বদ্ধ রাখে কর্তৃপক্ষ।বিষয়টি নিশ্চিত করে রাতে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) আবু আসলাম জানান, সকালে শিক্ষার্থীরা এসে কান্না জড়িত কণ্ঠে নিজেদের শিক্ষাজীবন নিয়ে শঙ্কার কথা জানায়।এ সময় জেলা প্রশাসকের নির্দেশে ম্যাজিস্ট্রেট পাঠানো হয় কলেজেটিতে।তবে সেখানে এমডি-অধ্যক্ষসহ কোন কর্মকর্তাকে পাওয়া যায়নি।

তিনি আরও জানান, কর্তৃপক্ষ শিক্ষাগত যোগ্যতার সব কাগজপত্র ফেরত দেওয়ার নামে কালক্ষেপন করছে।তারা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন কথা বলছেন।তবে বিষয়টি নিয়ে মন্ত্রণালয়ে কথা হয়েছে, গুরুত্ব সহকারে বিষয়টি দেখা হচ্ছে বলেও তিনি জানান।

প্রসঙ্গত, বেসরকারি মেডিকেল কলেজ স্থাপন ও পরিচালনা নীতিমালা-২০১১ (সংশোধিত) প্রতিপালন না করায় রাজশাহীর শাহ মখদুম মেডিকেল কলেজে ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে ছাত্রছাত্রী ভর্তি বন্ধ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।একই সঙ্গে কলেজে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের মাইগ্রেশনের ব্যবস্থা করার নির্দেশ দেয় মন্ত্রণালয়।এরই প্রেক্ষিতে শিক্ষার্থীরা রাজশাহী মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনস্থ অন্য বেসরকারি মেডিক্যাল কলেজগুলোতে মাইগ্রেশন করে ভর্তি হয়েছে।তবে কর্তৃপক্ষ কাগজপত্র দিচ্ছে না।এনিয়ে রোববার মেডিকেল ক্যাম্পাসে অবস্থান নেয় শিক্ষার্থীরা।

IPCS News /রির্পোট, আবুল কালাম আজাদ।