সোমবার ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১২ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

জ্যোষ্ঠতা লঙ্ঘন করে পূর্বাঞ্চলের মহাব্যবস্থাপক নিয়োগ, বাড়ছে ক্ষোভ

আপডেটঃ ১২:১২ অপরাহ্ণ | ডিসেম্বর ১৩, ২০২০

নিউজ ডেস্কঃ

জ্যেষ্ঠতার তালিকা অনুযায়ী ১৪ জন কর্মকর্তার তালিকার একেবারেই শেষ ব্যক্তি জাহাঙ্গীর হোসেন।কিন্তু তাকেই দায়িত্ব দেওয়া হচ্ছে রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের মহাব্যবস্থাপকের।এর ফলে রেল ভবনসহ সমগ্র রেল অঙ্গনে জ্যেষ্ঠতা লঙ্ঘন নিয়ে ক্ষোভের সৃস্টি হয়েছে।জাহাঙ্গীর হোসেন খুলনার মংলা প্রকল্পের প্রজেক্ট ডিরেক্টর ছিলেন।রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের সাবেক মহাব্যবস্থাপক শেখ নাসির উদ্দীন অবসরগ্রহনের পর থেকে ভারপ্রাপ্ত মহাব্যবস্থাপক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন সর্দার শাহাদাৎ আলী।জ্যেষ্ঠতা লঙ্ঘন করেই তার স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন জাহাঙ্গীর হোসেন।সর্দার শাহাদাৎ আলীকে, অতিরিক্ত মহাপরিচালক (অপি) হিসেবে পদায়ন করা হয়েছে।

অভিযোগ উঠেছে, পাবলিক সার্ভিস কমিশন ঘোষিত জ্যেষ্ঠতা লঙ্ঘন করে ১৪ জনের তালিকার সর্বশেষ ব্যক্তিকে মহাব্যবস্থাপক পদে পদায়ন করার।জানা গেছে, দশম বিসিএসে পাবলিক সার্ভিস কমিশনের জ্যেষ্ঠ ১৪ জন কর্মকর্তার তালিকা অনুযায়ী প্রথম জন হলেন মনজুরুল আলম।এরপর যথাক্রমে মিহির কান্তি গৃহ, কামরুল আহসান, আব্দুল্লাহেল বাকি, শহিদুল ইসলাম, মফিজুর রহমান, মিজানুর রহমান, নুর আহম্মেদ হোসেন, রুহুল কাদের আজাদ, অসীম তালুকদার, রমজান আলী, সর্দার শাহাদাৎ আলী, আরিফুজ্জামান এবং জাহাঙ্গীর হোসেন।রেলওয়ে সংশ্লিষ্টরা বলছেন, এ তালিকায় সর্বশেষ অবস্থানে থাকা জাহাঙ্গীর হোসেনকে জ্যেষ্ঠতা লঙ্ঘন করে পদায়নের বিষয়টি নিয়ে তৈরী হয়েছে ক্ষোভ।ক্লীন ইমেজ ও জ্যেষ্ঠতায় আগে রয়েছে আরও ১৩ জন।এভাবে জ্যেষ্ঠতা লঙ্ঘন করাকে ‘খারাপ’ নজির বলেই মনে করছেন অনেকেই।

IPCS News /রির্পোট, আবুল কালাম আজাদ।