বুধবার ২০শে জানুয়ারি, ২০২১ ইং ৬ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

সংবাদ শিরোনামঃ

রাজশাহীতে পুলিশের কথিত সোর্সকে গনধোলায় দিয়েছে ক্ষুদ্ধ এলাকাবাসি

আপডেটঃ ১:১৯ অপরাহ্ণ | নভেম্বর ০৭, ২০২০

নিউজ ডেস্কঃ

মাদক দিয়ে নিরিহ মানুষকে পুলিশ দিয়ে হয়রানি,প্রকাশ্যে মাদক সেবন, মাদক ব্যবসায়ীদের নিকট থেকে অর্থ আদায়, কথায়,কথায় লোকজনের উপর চড়াও সহ নান অত্যাচারে অতিষ্ঠ এলাকা বাসি  রুবেল নামের এক যুবককে গনধোলাই দিয়েছ।সে রাজশাহী মহানগরীর আসামকলোনী রবের মোড়ের আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে এবং চন্দ্রীমা থানার কথিত সোর্স।একাধিক এলাকাবাসি জানায়, রুবেল পুলিশের সোর্স পরিচয়ে দীর্ঘদিন যাবৎ মাদক ব্যবসা ও জুয়ার বোর্ড চালিয়ে আসছিল।সে এলাকায় মাদক, জুয়া ও বহু অনৈতিক কর্মকান্ডের সাথে জড়িত।তার কাজে কেউ বাধাদিলে তাকে মাদক দিয়ে ফাঁসিয়ে পুলিশি হয়রানি করতো।

এছাড়া কথায় কথায় মারপিটের ঘটনা ঘটাতো।তার এসব কাজে সহযোগীতা করতো নগরীর চন্দ্রীমা থানায় কয়েকজন এসআই।তার অত্যাচারের ঘটনা নিয়ে স্থানীয় ও জাতীয় দৈনিকে একাধিক সংবাদ প্রকাশ হলেও পুলিশের সোর্স হওয়ায় থানা পুলিশ কোন ব্যবস্থা নেননি।৫ নম্ভের বৃহঃপতিবার সকাল ১১ টায় আসাম কলোনী রবের মোড়ে মাদক বিক্রির আদিপত্য বিস্তার করতে, ঈমন নামের এক ব্যাক্তিকে পিটিয়ে আহত করে।পরে  ক্ষুদ্ধ এলাকাবাসি রুবেলসহ তার সাঙ্গপাঙ্গকে ধাওয়া করে গনধোলাই দেন।এতে কয়েকজন  আহত হয়।

এবিষয়ে চন্দ্রীমা থানার অফিসার ইনচার্জ সিরাজুম মনির বলেন, তিনি মারামারি ঘটনাটি জানেন,পুলিশ ঘটনা স্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে এনেছেন।তিনি আরো জানান রুবেল তার থানার কোন সোর্স নয়।সে,মাদকসহ অনৈতিক কাজের সাথে জড়িত এটা তিনি এলাকাবাসির অভিযোগে জেনেছেন।তিনি আরো জানান,তার থানায় মাদক সমপৃক্তদের কোন ছাড় নাই।এপর্যন্ত বিষয়টি নিয়ে কেউ অভিযোগ করেনি।অভিযোগ হলে তদন্ত স্বাপেক্ষে আইনগত ব্যাস্থা নেয়া হবে বলেও জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।

IPCS News /রির্পোট, আবুল কালাম আজাদ।