রবিবার ২৯শে নভেম্বর, ২০২০ ইং ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

সংবাদ শিরোনামঃ

পদ্মার নাব্যতা রক্ষার দাবিতে রাজশাহীতে কর্মসূচি পালন

আপডেটঃ ১:৫৭ অপরাহ্ণ | নভেম্বর ০৩, ২০২০

নিউজ ডেস্কঃ

পদ্মার নাব্যতা রক্ষা করে পানির স্বাভাবিক প্রবাহ নিশ্চিত করার দাবিতে রাজশাহীর জেলা প্রশাসকের (ডিসি) কার্যালয় ঘেরাও কর্মসূচি পালন করা হয়েছে।১ লা নভেম্বর রোববার সকালে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির রাজশাহী জেলা ও মহানগরের নেতাকর্মীরা এ কর্মসূচি পালন করেন। তারা ডিসির কার্যালয়ের সামনে পদ্মা রক্ষার দাবিতে সমাবেশ করেন।পরে তারা জেলা প্রশাসক আবদুল জলিল বরাবর একটি স্মারকলিপি দেন।এতে ১৮ দফা দাবি জানানো হয়েছে।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মুহাম্মদ শরিফুল হক এই স্মারকলিপি গ্রহণ করেন।স্মারকলিপিতে বলা হয়েছে, রাজশাহীর ইতিহাস-ঐতিহ্য, আবহাওয়া-প্রকৃতি, অর্থনীতিসহ সমস্ত কিছুতেই জড়িয়ে আছে পদ্মা।কিন্তু অবৈধ দখল, বালু উত্তোলন এখন পদ্মার গতিপথ বদলে দিচ্ছে।হুমকির মুখে পড়ছে শহর।সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের উদাসীনতায় পদ্মার নাব্যতাও হারিয়েছে।প্রতিবেশী দেশ ভারতের একতরফা সিদ্ধান্তের কারণে পদ্মার পানি প্রবাহ কমেছে।শুকিয়ে যাচ্ছে পদ্মার শাখা নদী এবং খাল-বিলগুলো।উত্তরাঞ্চলে মরুকরণ হচ্ছে।এ অবস্থায় পদ্মার নাব্যতা রক্ষা জরুরি।স্মারকলিপিতে অবৈধ দখলদারদের হাত থেকে পদ্মা ও এর শাখা নদীগুলোকে উদ্ধার, নদী থেকে বালু উত্তোলনের নীতিমালা প্রণয়ন, রাজশাহী শহর রক্ষা বাঁধের ১৯টি স্লুইস গেট সব সময় খোলা রাখা, হারিয়ে যাওয়া পদ্মার শাখা নদীগুলোকে পুনরুদ্ধার, ১৮৯৭ সালে খনন করা ‘নারদ’ খাল ও ‘বৈরাগী’ খাল পুনসংস্কার করে পদ্মার সঙ্গে সংযোগ স্থাপন, হারিয়ে যাওয়া চিনারকুপ নদী পুনঃখনন এবং শহরের বর্জ্য পানি পরিশোধনের পরই বারনই নদীতে ফেলার দাবি জানানো হয়।

এছাড়া শহরের বর্জ্যরে মাধ্যমে পদ্মার দূষণ রোধ, বড়াল নদীর মুখে স্লুইস গেট অপসারণ করে পানির স্বাভাবিক প্রবাহ নিশ্চিত, নদীর প্রতি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের বৈরী আচরণের বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়া, গঙ্গার মূল প্রবাহ পদ্মায়ও নিশ্চিত করা, পদ্মার পানির প্রবাহ জনসম্মুখে প্রকাশ করা, উত্তর রাজশাহী সেচ প্রকল্প দ্রুত বাস্তবায়ন, ভূ-গর্ভস্থ পানি উত্তোলন বন্ধ করার দাবি জানানো হয়।এর আগে অনুষ্ঠিত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রফিকুল ইসলাম পিয়ারুল।বক্তব্য দেন- মহানগরের সাধারণ সম্পাদক দেবাশিষ প্রামানিক দেবু ও জেলার সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল হক তোতা।

নগর সম্পাদকমণ্ডলির সদস্য মনির উদ্দিন পান্নার পরিচালনায় এতে আরও বক্তব্য দেন- নগর সম্পাদকমণ্ডলির সদস্য আবদুল মতিন, নাজমুল করিম অপু, মনিরুজ্জামান মনির, গোদাগাড়ী উপজেলা সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সাইদুর রহমান প্রমুখ।

IPCS News /রির্পোট, আবুল কালাম আজাদ।