সোমবার ১৫ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৩১শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

রামেকে ৫ বছর ধরে সাংবাদিকদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে স্বাস্থ্য অধিূপ্তরের ডিজির দুঃখ প্রকাশ

আপডেটঃ ৬:৩৫ অপরাহ্ণ | আগস্ট ২৫, ২০২০

নিউজ ডেস্কঃ

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঁচ বছর ধরে সাংবাদিকদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা থাকা নিয়ে দুঃখ প্রকাশ করেছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি) এবিএম খোরশেদ আলম।এনিয়ে সাংবাদিকদের কাছে ক্ষমা চেয়ে তিনি বলেছেন, মিডিয়াকে দুরে রেখে কোন কাজ সম্পন্ন করা যাবে না।২৩ আগস্ট রোববার বেলা ১১টার দিকে রামেক হাসপাতাল পরিদর্শন ও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সাথে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এসব কথা বলেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এবিএম খোরশেদ আলম।তিনি বলেন, এখানে পাঁচ বছর ধরে সাংবাদিকদের ঢুকতে দেয়া হয়না- এই অভিযোগ শুনলাম।এ জন্য যদি আমি দায়ী হয়ে থাকি তাহলে আপনাদের (সাংবাদিকদের) কাছে আমি দুঃখিত এবং ক্ষমা চাই।স্বাস্থ্যের ডিজি বলেন, দেশের মিডিয়া অনেক শক্তিশালী মাধ্যম।সাংবাদিকরা সরকারের স্বাস্থ্যসেবার উন্নয়ন তুলে না ধরলে জনগণ জানবে না।আমরা যতই তুলে ধরি না কেন, তা জনগণ বিশ্বাস করবে না।আমি হাসপাতালের পরিচালককে অনুরোধ করবো, আপনি মিডিয়ার সঙ্গে থাকেন। তাদের কাজ করতে সহযোগিতা করেন।আপনাকে অনুরোধ করে গেলাম, পরিস্থিতি অনুযায়ী ব্যবস্থা নেবেন।তিনি মন্তব্য করেন রামেক হাসপাতাল করোনা রোগের চিকিৎসায় ভাল কাজ করছে।ঢাকার অনেক হাসপাতালের চেয়ে এখানকার ব্যবস্থাপনা ভাল।অন্যান্য রোগের চিকিৎসা এবং অপারেশন আগের চেয়ে একটু কমলেও বেশ ভাল হয়েছে।তিনি বলেন, করোনার টিকার নির্দেশনা প্রধানমন্ত্রী বা স্বাস্থ্যমন্ত্রী দেবেন।তবে টিকা আবিস্কার হলে বাংলাদেশ যাতে সাথে সাথে পেতে পারে সে হোমওয়ার্ক আমরা করছি।টিকা আবিস্কার হলে আমরাও পাব।এ সময় উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক (হাসপাতাল ও ক্লিনিক) ফরিদ হোসেন মিয়া, রাজশাহী মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. নওশাদ আলী, রাজশাহী বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. গোপেন্দ্রনাথ আচার্য, রামেক হাসপাতালের পরিচালক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল জামিলুর রহমান প্রমূখ।

IPCS News /রির্পোট, আবুল কালাম আজাদ।