শুক্রবার ২১শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৭ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

নিজের জীবন বাজি রেখে ডুবন্ত ৩ শিশুর জীবন বাঁচালো পুলিশ

আপডেটঃ ৩:০৪ অপরাহ্ণ | জুলাই ২৫, ২০২০

নিউজ ডেস্কঃ

রাজশাহীর দূর্গাপুরের হোজা নদীতে ভেসে যাওয়া তিন শিশুকে নিজের জীবন বাজি রেখে ডুবন্ত ৩ শিশুকে উদ্ধার করে তাদের জীবন বাঁচিয়েছে, দূর্গাপুর থানা পুলিশের কনস্টেবল আতিক।উদ্ধার কৃত শিশুরা হচ্ছে, দুর্গাপুরের গ্রামের ইয়ানুস আলীর পুত্র রুবেল (১০), দূর্গাপুর কলেজের শিক্ষক আয়নালের পুত্র স্বচ্ছ (১০) ও দুর্গাপুর থানায় কর্মরত পুলিশ কনস্টেবল জাকির হোসেনের পুত্র মাহাদী (১১)।,
রাজশাহী জেলা পুলিশের মিডিয়া মুখ্যপাত্র অতিঃ পুলিশ সুপার ইফতে খায়ের আলমের পাঠানো ই-মেইল বার্তায় এ তথ্য জানা গেছে।মেইল বার্তায় আরো জানা গেছে,২১ জুলাই মঙ্গলবার সকাল দশটার দিকে তিন শিশু খেলার ছলে, থানা সংলগ্ন মন্দিরের পেছনে বয়ে যাওয়া খরস্রতা হোজরা নদিতে ৩ শিশু  পা ভেজাতে যায় এবং নদির  প্রবল পানির স্রোতের মধ্যে,  ঐ তিন শিশু পানিতে নেমে নদীর মাঝামাঝি ঝুলন্ত ব্রিজের কাছাকাছি যেতেই পানির তোড়ে তারা ভেসে যায় এবং বাঁচার জন্য চিৎকার করতে থাকে।
এ সময় অনেকেই আশেপাশে থেকেও  উদ্ধার না করে ভেসে যাবার দৃশ্য দেখতে থাকে।

কিন্তু  শিশুদের পানিতে ভেসে যাওয়ার দৃশ্য দেখে দাঁড়িয়ে থাকতে পারেননি পুলিশ কনস্টেবল আতিক।সে,নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে তৎক্ষণাৎ নদীতে ঝাঁপিয়ে পড়ে প্রবল স্রোতে ভেসে যাওয়া ওই তিন শিশুকে সাঁতরিয়ে টেনে তীরে তুলেন আতিক।রাজশাহী জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) ইফতেখায়ের আলম বলেন, দেশ ও জাতির প্রতি অর্পিত দায়িত্ববোধ থেকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষার পাশাপাশি মানবিক কাজে সবসময় সাধারন জনগনের পাশে রয়েছে রাজশাহী জেলা পুলিশ। আর এই মানবিক দিক থেকে কাজটি করেছে কনস্টেবল আতিক।

IPCS News /রির্পোট, আবুল কালাম আজাদ (রাজশাহী)।