শনিবার ১৫ই আগস্ট, ২০২০ ইং ৩১শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

সংবাদ শিরোনামঃ

রাজশাহী মহানগরীর উন্নয়নবিষয়ে গনমাধ্যম কর্মীদের সাথে রাসিক মেয়রের মতবিনিময়

আপডেটঃ ২:৩৮ অপরাহ্ণ | জুলাই ২৫, ২০২০

নিউজ ডেস্কঃ

রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন মহানগরীতে কর্মরত গণমাধ্যমকর্মীদের সাথে এই মতবিনিময় করেন।এসময় মেয়র উপস্থিত গণমাধ্যমকর্মীদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন।মঙ্গলবার দুপুরে নগর ভবনের সিটি হল সভাকক্ষে এই সভার আয়োজন করা হয়।সভায় সিটি মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, মহানগরীতে জনসংখ্যা ও যানবাহন বৃদ্ধি পাওয়া এবং যানজট নিরসনে বিভিন্ন সড়ক প্রশস্ত করার প্রয়োজনীয়তা দেখা দিয়েছে।ইতোমধ্যে মহানগরীর কয়েকটি গুরতপূর্ণ সড়ক ফোরলেনে উন্নীতকরণের কাজ চলছে।আলিফ লাম মিম ভাটা থেকে বুধপাড়া, বিলসিমলা রেলক্রসিং হতে কাশিয়াডাঙ্গা, দড়িখরবোনা হতে মালোপাড়া, আলুপট্টি হতে তালাইমারি, মনিচত্বর থেকে সদর হাসপাতাল পর্যন্ত সড়ক ফোরলেনে উন্নীতকরণের কাজ চলছে।সড়কগুলোর কাজ শেষ হলে যানজট নিরসন ও জনসাধারণের নির্বিঘ্নে চলাচল নিশ্চিত হবে।মেয়র আরো বলেন, মনিচত্বর থেকে সদর হাসপাতাল পর্যন্ত রাস্তার পাশে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সীমানা প্রাচীর তৈরি করা হচ্ছে।রাজশাহী কলেজের সম্মুখভাগে প্রশাসনিক ভবন থেকে মিলনায়তন পর্যন্ত কোন ভূমি অধিগ্রহণ হবে না।রাজশাহী কলেজের বর্তমান সীমানা প্রাচীর ভাঙ্গা হবে না।পরের অংশটুকু নতুনভাবে সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করা হচ্ছে।নতুনভাবে সীমানা প্রাচীর নির্মাণে বর্তমান কাঠামোর কোন পরিবর্তন করা হবে না।ঐতিহ্য রক্ষায় প্রততাত্ত্বিকদের পরামর্শে একই ডিজাইনে একইভাবে সীমানা প্রাচীর করা হবে।মেয়র আরো বলেন, রাজশাহীর বিভিন্ন ঐতিহ্য রক্ষায় কাজ করতে চায় সিটি কর্পোরেশন।

বড়কুঠি সংস্কার করে সেটিকে ঐতিহ্যবাহী প্রতিষ্ঠান হিসেবে রূপ দিতে চাই।যা রাজশাহীতে পর্যটকদের আকৃষ্ট করবে।এ সময় মহানগরীর বিভিন্ন উন্নয়নকাজে গণমাধ্যমকর্মীদের সহযোগিতা কামনা করেন মেয়র।সভায় নগরীর চলমান উন্নয়ন প্রকল্পের ভিডিও চিত্র উপস্থাপন করেন নির্বাহী প্রকৌশলী (পরিকল্পনা) গোলাম মুর্শেদ।মতবিনিময় সভায় উপস্থিত সাংবাদিকবৃন্দ রাজশাহী মহানগরীর চলমান উন্নয়ন প্রকল্প বিষয়ে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পরামর্শ প্রদান করেন।সভায় রাসিকের প্যানেল মেয়র-১ ও ১২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সরিফুল ইসলাম বাবু, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. এবিএম শরীফ উদ্দিন, সচিব আবু হায়াত মোঃ রহমতুল্লাহ, ভারপ্রাপ্ত প্রধান প্রকৌশলী খন্দকার খায়রুল বাশার উপস্থিত ছিলেন।এ সময় রাসিকের কাউন্সিলরবৃন্দ, স্থানীয় পত্রিকার সম্পাদকবৃন্দ, প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

IPCS News /রির্পোট, আবুল কালাম আজাদ (রাজশাহী)।