বৃহস্পতিবার ১লা অক্টোবর, ২০২০ ইং ১৬ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

সকালে ফলের রস খেয়েই ঘরে ঢুকে দরজা বন্ধ করেছিলেন সুশান্ত!

আপডেটঃ ১:১৫ অপরাহ্ণ | জুন ১৫, ২০২০

বিনোদন ডেস্ক:

মাত্র ৩৪ বছর বয়সে আত্মহত্যা করলেন সুশান্ত সিং রাজপুত।বান্দ্রার ফ্ল্যাটে উদ্ধার দেহ, কেরিয়ারের শীর্ষে থেকেও কেন আত্মহননের পথ বেছে নিলেন সুশান্ত তা নিয়ে হয়রান গোটা ইন্ডাস্ট্রি।রবিবার সকালে ঘুম থেকে উঠে ১০টা নাগাদ এক গ্লাস জুস খান।এরপর তিনি নিজের ঘরে ঢুকে ভেতর থেকে দরজা আটকে দেন।একজন অ্যাটেনডেন্ট একটু পরে তাঁকে ডাকলেও দরজা খোলেননি অভিনেতা।তাঁর বন্ধু ১০৮-এ পুলিশকে খবর দেন।পুলিশ গিয়ে বেলা ১২.৩০টা নাগাদ দরজা ভেঙে উদ্ধার করে সুশান্তের দেহ। বিছানার চাদরে গলায় ফাঁস দিয়ে সিলিং ফ্যানে ঝুলন্ত অবস্থায় মেলে তাঁর দেহ।মৃত্যুর সময় তাঁর পরণে ছিল ইন্টারন্যাশনাল স্পেস ইউনিভার্সিটির একটি কালো টি-শার্ট।নভশ্চর হওয়ার স্বপ্ন উপলব্ধির জন্য পাইলটের প্রশিক্ষণ নিচ্ছিলেন সুশান্ত।

প্রসঙ্গত, সুশান্তের প্রাক্তন ম্যানেজার দিশা সালিয়ানের রহস্য মৃত্যুর খবর সামনে এসেছিল।প্রাক্তন ম্যানেজারের মৃত্যুর খবরে শুনে মঙ্গলবার সুশান্ত সিং রাজপুত ইনস্টাগ্রামে লেখেন ‘অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক একটা খবর।দিশার পরিবার ও বন্ধুদের প্রতি জানাই গভীর সমবেদনা।তোমার আত্মার শান্তি কামনা করি’।এর চারদিনের মাথায় নিজেই আত্মহননে পথ কেন বাছলেন সুশান্ত? উত্তর মিলছে না।

২০০৮ সালে বালাজি টেলিফ্লিমসের কিস দেশ মে হ্যায় মেরা দিলের সঙ্গে অভিনয় কেরিয়ার শুরু করেন সুশান্ত সিং রাজপুত।প্রথমবার লিড রোলে দর্শক তাকে দেখেছে একতা কাপুরের পবিত্র রিসকা ধারাবাহিকে।বক্স অফিসে তাঁর শেষ ছবি ছিল ছিঁছোড়ে।যদিও নেটফ্লিক্সের ছবি ড্রাইভে শেষবার দেখা গিয়েছে তাঁকে।সম্প্রতি তাঁর হাতে কোনও ফিল্ম ছিল না।তিনি হতাশায় ভুগছিলেন বলে মনে করা হচ্ছে।

IPCS News /রির্পোট।