শনিবার ৩রা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সংবাদ শিরোনামঃ

নেত্রকোণার পৃথক পৃথক হাওরে ধমকা হাওয়ার কবলে পড়ে নৌকা ডুবে ৩ মৎস্য শিকারীর মৃত্যু

আপডেটঃ ৯:৪৫ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ১০, ২০২২

নিউজ ডেস্কঃ

নেত্রকোণা:-নেত্রকোণা জেলার পৃথক পৃথক হাওরে শুক্রবার রাতে প্রবল ধমকা হাওয়ার কবলে পড়ে নৌকা ডুবে তিন মৎস্য শিকারীর মৃত্যু হয়েছে।স্থানীয় এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত শুক্রবার রাত আনুমানিক পৌনে ১০টার দিকে হঠাৎ করে নেত্রকোণা জেলার মদন, আটপাড়া ও মোহনগঞ্জ উপজেলার উপর দিয়ে প্রবল বেগে গরম ধমকা হাওয়া বয়ে যায়।এ সময় বিভিন্ন হাওরে মাছ ধরতে গিয়ে নৌকা ডুবিতে তিন মৎস্য শিকারীর মৃত্যু হয়।স্থানীয়রা জানায়, মদন উপজেলার মাঘান ইউনিয়নের পদারপাড় নয়াপাড়া গ্রামের সওদাগর মিয়ার ছেলে রফিকুল ইসলাম (৩৬) নামক এক মৎস্য শিকারী শুক্রবার রাতে মান্দারকাটা হাওরের মাছ শিকার করতে গিয়ে ধমকা হাওয়ার কবলে পড়ে নৌকা ডুবে নিখোজঁ হয়।খবর পেয়ে পুলিশ আজ শনিবার সকালে হাওর থেকে তার মৃতদেহ উদ্ধার করে।

এদিকে আটপাড়া উপজেলার দুওজ ইউনিয়নের কৈলং গ্রামের জব্বার ফকিরের পুত্র দিলোয়ার হোসেন দিলু (৩২) নামক এক মৎস্য শিকারী শুক্রবার রাতে গণেশের হাওরের মাছ শিকার করতে গিয়ে প্রবল ধমকা বাতাসে নৌকা নৌকা ডুবে নিখোঁজ হয়।খবর পেয়ে গ্রামবাসী অনেক তল্লাশীর পর হাওর থেকে তার মৃতদেহ উদ্ধার করে।

অপরদিকে মোহনগঞ্জ উপজেলার দরুণ বানিহারী গ্রামের বজলু মিয়ার ছেলে রাসেল (৩৫) নামক একজন মৎস্য শিকারী শুক্রবার রাতে ডিঁঙ্গাপুতার হাওরে মাছ শিকার করতে গিয়ে ধমকা হাওয়ায় নৌকা উল্টে পানিতে ডুবে নিখোজঁ হয়।

খবর পেয়ে পুলিশ গ্রামবাসীর সহায়তায় আজ শনিবার দুপুরে হাওরে তল্লাশী চালিয়ে তার মৃতদেহ উদ্ধার করে।নেত্রকোণার পুলিশ সুপার ফয়েজ আহমেদের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি ধমকা বাতাসে নৌকা ডুবে তিন মৎস্য শিকারীর মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

IPCS News : Dhaka : গোলাম কিবরিয়া সোহেল : নেত্রকোণা।