সোমবার ১৫ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৩১শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মদনে বন্যায় হাসেঁর মৃত্যুতে খামারীরা ক্ষতি-গ্রস্থ। পূর্নবাষনের দাবি।

আপডেটঃ ৫:৫০ অপরাহ্ণ | জুলাই ২৭, ২০২২

নিউজ ডেস্কঃ

নেত্রকোনা:- নেত্রকোনা মদন উপজেলার হাওর অঞ্চল ঘোষিত গোবিন্দশ্রী ইউনিয়নের মনিকা গ্রামের মৃত বানু হোসেনের ছেলে কামরুল হোসেন (২৯), পাহাড়ি ঢলে উজান থেকে নেমে ভারী বর্ষণে বন্যার পানি রাতারাতি বৃদ্ধি পাওয়ায় উপজেলা প্রাণী সম্পদের ব্যাপক ক্ষতি হযেছে।এতে উপজেলার নিচু এলাকা তলিয়ে যাওয়ায় কামরুলের হাসেঁর খামার পানিতে ডুবে গিয়ে ৭ শত হাসেঁর মধ্যে ৪ শত হাঁস পানির চাপ ও খাদ্যের অভাবে মারা যায়।খামারির ঘরে থাকা প্রায় শতাধিক দানাদার খাদ্যের বস্তা পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় কামারি কামরুল ইসলাম অনেক ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছেন।ক্ষতিগ্রস্থ কামরুল এ প্রতিনিধিকে জানান, হটাৎ করে বন্যার পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় আমার হাসেঁর খামার ঘরটি নিচু জমিতে থাকার কারনে আকর্ষিক বন্যার পানি হাঁসের খামারে ডুকে আমার ৪ শত হাঁস শ্বাসরুদ্ধ ও খাদ্যের অভাবে মারা যায়।

এতে আমার খামারে প্রায় ৩ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে।আমার খামারে বেঁচে থাকা হাঁস গুলি এখন চরম খাদ্য সংকটে পরেছে।সরকারি সহযোগিতা ছাড়া এ সংকট থেকে আমার উত্তোলনের আর কোনো পথ নেই।

মদন উপজেলা প্রাণী সম্পদ (ভারপ্রাপ্ত) কর্মকর্তা অমিত শাহ এ প্রতিনিধিকে জানান, উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল ও ভারী বর্ষণের কারনে উপজেলার নিচু এলাকা পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় প্রাণী সম্পদের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।

এর মধ্যে গোবিন্দশ্রী ইউনিয়নের মনিকা গ্রামের কামরুল ইসলামের হাসেঁর খামারটি ক্ষতি হয়েছে বিষয়টি শুনেছি।তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

IPCS News : Dhaka : শহীদুল ইসলাম : নেত্রকোনা।