মঙ্গলবার ২২শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং ৭ই কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

সরকারি উদ্যোগে গাড়ি চালনা শিখছেন নারীরা

আপডেটঃ ২:৪৭ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ০৫, ২০১৯

অনলাইন ডেস্ক

রাইহানা ভূঁইয়া (৩৫) গাজীপুরের কালীগঞ্জ পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের দুর্বাটি গ্রামের বাসিন্দা ।তিনি একজন গৃহিণী।ইচ্ছা ছিল নিজেই গাড়ি চালিয়ে সন্তানদের স্কুলে নিয়ে যাবেন।সরকারি উদ্যোগে গাড়ি চালানো শিখছেন তিনি।সেই সাথে আছেন নুসরাত জাহান (২২)তিনি কালীগঞ্জ শ্রমিক কলেজের ডিগ্রি দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী তাঁর স্বপ্ন ও পূরণ হতে চলল এতদিনে।শুধু তারাই নয় চোখে সপ্ন আর অদ্যম ইচ্ছা নিয়ে এ তালিকায় নাম দিয়েছেন আরো অনেক সপ্নবাজ নারী।প্রশিক্ষণে আসা নারীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, এ প্রশিক্ষণে অংশ নিতে এসে তাঁদের সবাইকে কমবেশি বাধার মুখে পড়তে হয়েছে।কখনো পরিবার, কখনোবা সমাজের অন্যরা বাধা দিয়েছেন।তবে সব বাধা অগ্রাহ্য করে গাড়িচালনা শিখতে এসেছেন তাঁরা।তাঁদের সবার লক্ষ্য স্বাবলম্বী হওয়া।পরিবারের দুঃখ দূর করা, সন্তান ও ভাইবোনদের সমাজে প্রতিষ্ঠিত করা।কান্তা (২৫) নামের এক নারী বলেন, ‘ছোটবেলা থেকেই স্বপ্ন ছিল নিজে কিছু করব।তা ছাড়া নারী গাড়িচালক হওয়াটা গর্বেরও বিষয়।’শেফালি (২৮) নামের একজন বলেন, ‘মানুষ তো পিছে কথা বলেই, তাতে দুঃখ পেয়ে বসে থাকলে নিজেরই ক্ষতি।’ উপজেলার নারীবিষয়ক কর্মকর্তা শাহনাজ আক্তারের সঙ্গে কথা হলে তিনি বলেন, ‘নারীদের গাড়িচালনার প্রতি প্রচুর আগ্রহ।তাঁরা প্রত্যেকেই নিজেদের কাজকর্ম সেরে সময়মতো ড্রাইভিং ক্লাসে উপস্থিত হন।আমরাও চেষ্টা করি তাঁদের পূর্ণাঙ্গ দক্ষ চালক হিসেবে গড়ে তুলতে। এতে তাঁরা ভবিষ্যতে আত্মনির্ভরশীল হতে পারবেন।নতুন ব্যাচ ৩ মাস পর পর শুরু হবে।’ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শিবলী সাদিক বলেন, প্রতিটি ব্যাচে ৩০ জন করে থাকলেও আবেদন পড়েছে অসংখ্য।তাঁদের মধ্য থেকে বাছাই করে এই কজনকে নেওয়া হয়েছে।এই বিষয়ে নারীদের ভীষণ আগ্রহ দেখছেন বলে তিনি জানান।কালীগঞ্জ আরআরএন পাইলট সরকারি উচ্চবিদ্যালয়ের মাঠে নারীদের শেখানো হচ্ছে এই গাড়িচালনা।গাড়ির স্টিয়ারিংয়ে হাত রেখে এই নারীরা যাত্রা করছেন স্বপ্নপূরণের পথে। সূত্র-প্রথম আলো

IPCS News /আল-আমিন, গাজীপুর