শুক্রবার ২১শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৭ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

নবজাতককে দেখে বাড়ি ফেরা হলো না বাবা-ছেলের

আপডেটঃ ৬:৩৭ অপরাহ্ণ | ডিসেম্বর ১২, ২০২১

নিউজ ডেস্কঃ

রাজশাহী প্রতিনিধি:-নবজাতক সন্তানকে দেখে বাড়ি ফেরা হলো না বাবার।এর আগে ঘাতক ট্রাক কেড়ে নিলো প্রাণ।একই ঘটনায় ছেলের সঙ্গে নাতিকে দেখতে গিয়ে প্রাণ হারালেন দাদাও।বাবা-ছেলের এই মর্মান্তিক মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার বিজয়নগরে।শনিবার (১১ ডিসেম্বর) রাত পৌনে ১১টার দিকে রাজশাহী-চাঁপাইনাবগঞ্জ মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।এ ঘটনায় দাদা ঘটনাস্থলেই মারা যান। এছাড়া রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পর ওই নবজাতকের বাবা মারা যান।নিহতরা হলেন-রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার দেওপাড়া গোলা গ্রামের ইব্রাহীম হোসেন (২৮) ও তার বাবা আবদুস সালাম (৬০)।এর মধ্যে আব্দুস সালাম ঘটনাস্থলেই মারা যান।আর ইব্রাহীম শনিবার দিনগত রাত সাড়ে ৩টার দিকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার প্রেমতলী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মো. কামরুজ্জামান মিয়া জানান, ইব্রাহিমের শ্বশুরবাড়ি গোদাগাড়ী উপজেলার বিজয়নগরে।সেখানে তার স্ত্রী সন্তান প্রসব করেন।শনিবার রাতে বাবা ছেলে মোটরসাইকেলে করে ওই নবজাতক শিশুকে দেখার জন্য সেখানে যান। নবজাতককে দেখে বাড়ি ফেরার পথে ট্রাকের ধাক্কায় নিহত হন।

তারা দেওপাড়া দিকে আসার সময় বিজয়নগর নিমতলা মোড়ে এলে একটি বেপরোয়া ট্রাক তাদের ধাক্কা দিয়ে পালিয়ে যায়।এতে ঘটনাস্থলেই আব্দুস সালাম মারা যান।আশঙ্কাজনক অবস্থায় ইব্রাহীমকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।কিন্তু শনিবার দিনগত রাত সাড়ে তিনটার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

রাজশাহীর গোদাগাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ কামরুল ইসলাম বলেন, কোন অভিযোগ না থাকায় নিহতদের মরদেহ সকালের মধ্যেই পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যুর (ইউডি) মামলা করা হয়েছে বলে জানান, গোদাগাড়ী থানার ওই পুলিশ কর্মকর্তা।

IPCS News : Dhaka : আবুল কালাম আজাদ : রাজশাহী।