সোমবার ৬ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ২১শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

সংবাদ শিরোনামঃ

মনোহরদীর কাচিকাটা ইউনিয়নে জন-প্রিয়তার শীর্ষে মোবারক হোসেন কনকঃ

আপডেটঃ ৬:২৬ অপরাহ্ণ | নভেম্বর ১৭, ২০২১

নিউজ ডেস্কঃ

আসন্ন ইউপি নির্বাচনকে সামনে রেখে নরসিংদীর মনোহরদী উপজেলার কাচিকাটা ইউনিয়নবাসী আবারো চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চায় মোবারক হোসেন খান কনককে।সারা দেশে ইউপি নির্বাচনের চতুর্থ ধাপে আগামী ২৩ ডিসেম্বর মনোহরদী উপজেলায় ও নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।তাই তিনিই হচ্ছেন আওয়ামী লীগের একক প্রার্থী এমন গুঞ্জনই এখন কাচিকাটা ইউনিয়নের সাধারণ জণগনের মুখে মুখে।এমন লক্ষকে সামনে রেখেই চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন মোবারক হোসেন কনক।রবিবার বিকেলে কাচিকাটা ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বাছাইয়ের লক্ষ্যে বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।এতে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম খান বীরু, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট মু. ফজলুল হক, সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াশীষ রায়সহ উপজেলা এবং ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সেখানে তৃনমূলের সমর্থন অনুযায়ী দলীয় প্রার্থী তালিকায় মোবারক হোসেন খান কনককে ১ নম্বরে রেখে প্যানেল তৈরী করা হয়।

স্থানীয় লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, কাচিকাটা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হিসেবে তরুন জননেতা মোবারক হোসেন কনককে ফের চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চায় এখানকার উঠতি ভোটাররা।তাদের মতে তরুণ এই আওয়ামী লীগ নেতা এরই মধ্যে স্থানীয় আওয়ামী লীগের আস্থার প্রতীক হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে সক্ষম হয়েছেন।গত নির্বাচনে বিপুল ভোটের ব্যবধানে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে স্থানীয় রাজনীতিতে নিজেকে টেনে নিয়ে এসেছেন জনপ্রিয়তার শীর্ষে।এ ব্যাপারে জানতে চাওয়া হলে স্থানীয় আওয়ামী লীগ-যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও তাদের সহযোগী সংগঠনের নতুন প্রজন্মের নেতা-কর্মীরা জানিয়েছেন, এলাকাবাসীর অত্যন্ত আস্থাভাজন ও তাদের সুখ-দুঃখের অংশীদার হিসেবে কনককে আগামী নির্বাচনে আবারও কাচিকাটা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চায়।তফসীল ঘোষণার পর থেকে তিনি ব্যাপক প্রচার প্রচারণা ও গণসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন।কাচিকাটা ইউনিয়নবাসী মনে করে এলাকার উন্নয়নে ও কর্মীবান্ধব নেতা হিসেবে কনকের বিকল্প নেই।

তিনি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে এলাকায় ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন।প্রতিটি গ্রামে ব্রিজ-কালভার্ট, রাস্তা নির্মাণ ছাড়াও ঘরে ঘরে বিদ্যুতের ব্যবস্থা করেছেন। এলাকাবাসীর ধারণা কনক পুনরায় নির্বাচিত হলে এলাকা অনেক উন্নত হবে।এ ব্যাপারে মোবারক হোসেন খান কনক বলেন, আমি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শের সংগঠন, দেশরত্ন শেখ হাসিনার প্রিয় সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের রাজনীতির সাথে ছাত্রজীবন থেকেই জড়িত।

আমি চেয়ারম্যান হয়েছি জনগণের জন্য।আমি আমার নেতাকর্মীসহ সকল শ্রেণী-পেশার মানুষের সাথে আলোচনা করে এলাকায় উন্নয়ন কাজ করে চলেছি।আমি পুনরায় নির্বাচিত হলে সব শ্রেণী পেশার মানুষকে সাথে নিয়ে কাচিকাটা ইউনিয়নকে একটি মডেল ইউনিয়নে রূপান্তরিত করব ইনশাআল্লাহ।এজন্য আমি আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী।

আশা করি আমার কর্মকান্ড বিবেচনা করে দল আমাকে মনোনয়ন দিবে।তাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, জননেতা মাননীয় শিল্পমন্ত্রী অ্যাডভোকেট নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন মহোদয়, তাঁর সুযোগ্য উত্তরসূরী মঞ্জুরুল মজিদ মাহমুদ সাদী সাহেবসহ দলীয় নেতৃবৃন্দের সুদৃষ্টি কামনা করছি।

IPCS News : Dhaka : তাজুল ইসলাম বাদল : মনোহরদী (নরসিংদী) প্রতিনিধি।