শনিবার ৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

এ কেমন বর্বরতা ? স্ল্যাব লাগানোর অনুরোধ করলে প্রতিবেশীকে গলাধাক্কাঃ

আপডেটঃ ১২:৩৬ অপরাহ্ণ | নভেম্বর ১০, ২০২১

নিউজ ডেস্কঃ


স্টাফ রিপোর্টারঃ সেফটি ট্যাংকের মুখে স্ল্যাব না দেয়ায় ঘটছে দুর্ঘটনা।দিনাজপুর শহরোস্থ রামনগরে মাঠের পাশেই নির্মাণ করা হচ্ছে একটি বিল্ডিং।বিল্ডিংটি শুধুমাত্র প্রাচীরে ঘেরা।জমির মালিক সুভ্রা সাহা বিল্ডিং এর পাশে ৩০ ফুটের একটি ২টি সেফটি ট্যাংক বসিয়েছেন।তবে সেফটি ট্যাংকের মুখে এখন পর্যন্ত কোন স্ল্যাব বসানো হয়নি।ফলে ঘটছে প্রতিনিয়ত দুঘর্টনা।জানা গেছে, বিল্ডিংটির পাশের সেই ২টি সেফটি ট্যাংকের মুখ ৫ বছর ধরেই খোলা পড়ে আছে।গত মঙ্গলবার বিকালে (০৯-১১-২১) তারিখে ১টি গরুর বাছুর উক্ত সেফটি ট্যাংকে পড়ে যায়।স্থানীয় এলাকাবাসী দিনাজপুর ফায়ার সার্ভিস কর্তৃ-পক্ষকে খবর দিলে ফায়ার সার্ভিস স্টেশন এর অফিসার মোঃ মেহ্ফুজ তানজির ফোর্স নিয়ে বাছুরটিকে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করেন।স্থানীয় প্রতিবেশীরা উক্ত জমির মালিক সুপ্রা সাহাকে সেফটি ট্যাংকির উপর স্ল্যাব বসাতে বললে সুপ্রা সাহা প্রতিদেশীদের সাথে অশালীন আচরণ করেন।এই ঘটনায় সুপ্রা সাহার সাথে স্থানীয়দের বেশ কয়েকবার কথা কাটাকাটি এবং হাতাহাতি হয়েছে।

দিনাজপুর শহরের ঐতিয্যবাহি শিশুদের খেলার মাঠ হলো রামনগর মাঠ।এই মাঠে প্রতিদিন শিশুরা খেলাধুলা করে।এখানে যে কোন সময় শিশুদের মারাত্মক দুঘর্টনা ঘটার সম্ভাবনা রয়েছে।স্থানীয় প্রতিবেশীরা সুপ্রাকে বার বার তাগাদা দিলেও কোন কথাই শুনছে না সুপ্রা সাহা।রামনগর নিবাসী বাবু বলেন, এই মহিলা অত্যন্ত উগ্র মেজাজী।

আমরা বার বার অনুরোধ করা সত্বেও কোন কথা শোনেন না সুপ্রা সাহা।উল্টো ধমকের সুরে কথা বলেন।সেফটি ট্যাংকেরমুখে স্ল্যাব না বসালে যে কোন সময় খেলাধুলারত শিশুদের মৃত্যুর কারণও হতে পারে।তাই অনতিবিলম্বে স্থানীয় ভুক্তভোগী রামনগরবাসী উক্ত সিপ্রা সাহার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে দিনাজপুর পৌর মেয়র, কাউন্সিলর এবং জেলা প্রশাসকের সাহায্য কামনা করেছেন।

প্রসংঙ্গতঃ উল্লেখ্য যে, গতকাল রামনগর মাঠ সংলগ্ন বিপদজনক পরিত্যক্ত বিল্ডিংয়ের মৃত্যুকুপের প্রতিকার দাবি করায় বিল্ডিং মালিকের কাছে গলাধাক্কা খেলেন এক ভুক্তভোগী।ছবি-প্রতিনিধি

IPCS News : Dhaka : এম,এ সালাম : দিনাজপুর।